কিভাবে লিড জেনারেশন করবেন_ জেনে নিন ৬টি পদ্ধতি
কিভাবে লিড জেনারেশন করবেন জেনে নিন ৬টি পদ্ধতি

নিজের ব্যবসার ও লাইফস্টাইল পরিবর্তন করতে লিড জেনারেশন সহজ একটা সূত্র। এটার মাধ্যমে আপনি সবকিছু সমাধান করতে পারেন। আমি আজকে ফ্রিলান্সার, উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য করে লিড জেনারেশন পদ্ধতি আলোচনা করবো। একজন ফ্রিলান্সার, উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী হিসেবে লিড জেনারেশন সম্পর্কে গভীর জ্ঞান অর্জন করা গুরুত্বপূর্ণ। আগে লিড জেনারেশনের জন্য সাধারণ কিছু কৌশল নিয়ে আলোচনা করা যাক, তারপর কেন ফ্রিলান্সার, উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ীদের লিড জেনারেশন প্রয়োজন তা নিয়ে আলোচনা করবো।

লিড জেনারেশন এর জন্য সাধারণ কিছু কৌশলঃ

আজকে আমি আমার ব্যক্তিগত কাজের সিডিউল এবং অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো । মূলত লিড জেনারেশনের জন্য নির্দিষ্ট কোনো নিয়ম নেই। আপনার নিজের যতগুলো কৌশল আপনি ব্যবহার করতে পারবেন তাত বেশি সফল লিড আপনি জেনারেট করতে পারবেন।

মনে করুন আপনাকে যেকোনো ব্যবসায়ীক কারণে বা ফ্রিল্যান্সার হিসেবে বায়ার কে দেওয়ার জন্য বিল গেটস এর ইমেইল ঠিকানা আপনাকে খোঁজে বের করতে হবে। এখন আপনি কি কি পদ্ধতি ও কৌশল অনুসরণ করবেন? মূলত এটা নিয়ে আমি আজকে আমার ব্যক্তিগত কৌশলগুলো আলোচনা করবো।

প্রথম ধাপঃ

মনে করুন আমি বিল গেটস কে? উনি কি করেন? এসবকিছুই জানি না। এক্ষেত্রে আমার প্রথম কাজ হচ্ছে তার সম্পর্কে জানা। উনার পরিচিতি ব্যবসা ইত্যাদি সম্পর্কে সাধারণ ধারণা নিতে হবে। উনার নাম, চাকরির ঠিকানা বা ব্যবসার ঠিকানা, ওয়েবসাইট, ইত্যাদি ব্যবহার করে আমাকে তার ইমেইল ঠিকানা খোঁজে বের করতে হবে।

লিড জেনারেশন দ্বিতীয় ধাপঃ

বিল গেটস সম্পর্কে জানার পরে তার ইমেইল ঠিকানা সংগ্রহ করতে প্রথমেই তার নিজের ওয়েবসাইট বা কোম্পানির ওয়েবসাইট ভিজিট করে দেখতে হবে। অনেক সময় ওয়েবসাইটে তার ইমেইল ঠিকানা দেওয়া থাকতে পারে। যদি ওয়েবসাইটে তার ইমেইল ঠিকানা খোঁজে পাওয়া না যায়, তাহলে পরবর্তী ধাপে এগোতে হবে।

তৃতীয় ধাপঃ

যে ব্যক্তির লিড জেনারেশন করতে চাইছেন তিনি যদি সেলিব্রিটি টাইপের কেউ হয়ে থাকে, তাহলে তার ইমেইল ঠিকানা নিয়ে অন্যান্য প্লাটফর্ম গুলোতেও কথাবার্তা হতে পারে। হয়তো তাদের মধ্যে কেউ সোস্যাল মিডিয়াতে বা গুগলে তার ইমেইল ঠিকানা সাজেস্ট করতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি তার নাম, কোম্পানির, পদবি ইত্যাদি লিখে গুগলে সার্চ করবেন। দেখবেন কোনো না কোনভাবে আপনি তার ইমেইল ঠিকানা খোঁজে পাবেন। যদি খোঁজে না পান তাহলে তার ইমেইল ঠিকানার কিছু sample খোঁজে পাবেন। এক্ষেত্রে অবশ্যই sample গুলো নোট করবেন। এগুলো ব্যবহার করে আপনি তার লিড জেনারেট করতে পারবেন।

চতুর্থ ধাপঃ

আপনি যদি গুগল করেও বিল গেটস এর ইমেইল ঠিকানা খোঁজে বের করতে না পারেন, তাহলে এই ধাপে আপনাকে গুগল থেকে পাওয়া তথ্যগুলো ব্যবহার করতে হবে। যদি কোনো তথ্য খোঁজে না পান তাহলেও কোনো সমস্যা নেই। একটু চিন্তা করে দেখুন বিল গেটস কিন্তু একটা কোম্পানির মালিক। তার নিজস্ব কোম্পানির নামে ইমেইল ঠিকানা তৈরি করার সুযোগ রয়েছে। সুতরাং তিনি জিমেইল বা ইয়াহু এর মতো কোম্পানির ঠিকানা ব্যবহার করার কোনো সম্ভাবনা নেই। তিনি @microsoft.com, @outlook.com ও @hotmail.com ব্যবহার করবেন।

লিড জেনারেশন করবেন
লিড জেনারেশন করবেন

পৃথিবীতে ৬০%  থেকে ৮০% মানুষের ইমেইল ঠিকানা [email protected], [email protected], [email protected] অথবা [email protected] এমন হয়ে থাকে। সুতরাং এখন আপনাকে আপনাকে ঠিক এভাবে বিল গেটস এর নাম ব্যবহার করে ইমেইল তৈরি করে পরিক্ষা করতে হবে। হতে পারে আপনি এখানেই তার ইমেইল খোঁজে পাবেন।

পঞ্চম ও ষষ্ঠ ধাপঃ

আমি প্রথমেই বলেছি লিড জেনারেশন এর জন্য নির্দিষ্ট কোনো পদ্ধতি নেই। আমি ষষ্ঠ ধাপ পর্যন্ত লিখছি তার মানে এই নয় যে, আপনাকে ঠিক আমার এই ৬টি ধাপ অনুসরণ করতে হবে। আমি আমার লেখাকে ছোট করার জন্য খুবই সংক্ষিপ্ত আলোচনা করছি। পঞ্চম ও ষষ্ঠ ধাপগুলো প্রাকটিকাল কাজের মাধ্যমে দেখানো প্রয়োজন। এগুলো মূলতঃ আর্টিকেলের মাধ্যমে বোঝানো একটু কঠিন কাজ। তাই এই ধাপগুলো নিয়ে আমি কিছু ভিডিও টিউটোরিয়াল তৈরি করতে চেষ্টা করবো। “TecH Hacker” ইউটিউব চ্যানেলে আমি ভিডিওগুলো আপলোড করবো।

ফ্রিলান্সার, উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ীদের লিড জেনারেশন:

শুধুমাত্র লিড জেনারেশন সার্ভিস বিক্রি করে একজন ফ্রিল্যান্সার মাসে $১০০০ থেকে $১৫০০ ডলার চিন্তা ছাড়া উপার্জন করতে পারেন। আপনার যদি বিশ্বাস না হয়, তাহলে একটু ফাইভারে গিয়ে সার্চ করে দেখুন। আপনি নিজেই লাইভ প্রমাণ দেখতে পারবেন।

উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ীদের লিড জেনারেশন গুরুত্বপূর্ণ?

জ্বি, এটা মূলত তাদের জন্য মৌলিক কাজ। এটার মাধ্যমে একজন উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী তার ব্যবসার মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। লিড জেনারেশন যত সঠিক হবে তত বেশি আপনার ব্যবসার প্রচার ও বিক্রি বৃদ্ধি পাবে।

নিচের বাক্সে আপনার মতামত লিখে জানান।